সুপারস্টার দেব এর জীবনকাহিনী ~ Biography of Bengali Superstar Dev aka Deepak Adhikari


বাংলা চলচ্চিত্রে যার অভিনয়, নাচ দর্শকদের মুগ্ধ করে, যার সিনেমা মুক্তি পাওয়ার পর দর্শকরা ভালোবাসায় ভরিয়ে দেয়, তিনি হলেন সকলের প্রিয় দেব অর্থাৎ দীপক অধিকারী। জেনে নিন দেব এর জীবনের নানা ঘটনা –

superstar dev er jiboni

প্রথম জীবন

কেশপুরের মহেশখালি গ্রামে ১৯৮২ সালের ২৫ শে ডিসেম্বর জন্মগ্রহণ করেন দেব।
দেব নামেই তিনি অধিক পরিচিত হলেও তার আসল নাম দীপক অধিকারী। তবে বাড়ির লোকেরা তাকে রাজু নামে ডাকে। তার বাবার নাম গুরু অধিকারী এবং মায়ের নাম মৌসুমী অধিকারী।
দেব এর এক বোন আছে, যার না দীপালী অধিকারী।

deepak adhikari / dev childhood photo

দেব এর শৈশব জীবন কেটেছিল চন্দ্রকোনায়, মামা বাড়িতে। পরবর্তী কালে মুম্বাইয়ে গিয়ে পড়াশোনা করেন দেব।
মুম্বাইয়ের বান্দ্রার পুরস্তম হাই স্কুল ও পরবর্তীকালে পুনের ভারতীয় বিদ্যাপীঠ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন এ ডিপ্লোমা অর্জন করেন।

সিনেমার জগতে প্রবেশ

ছোট থেকেই অভিনয়ের প্রতি আগ্রহ ছিল দেব এর, তাই কলেজ জীবন শেষ হওয়ার পর “কিশোর নমিত কাপুর অ্যাক্টিং একাডেমী” থেকে অভিনয়ের কোর্স করেন তিনি। টলিউডে আসার আগে একটি মিউজিক ভিডিওতে শিব বন্দনায় দেখা গেছিল দেব কে।অভিনেতা হিসেবে কাজ শুরুর পূর্বে আব্বাস মস্তানের ‘টারর্জান দ্য ওয়ান্ডার কার’ ছবির সেটে অবসার্ভার হিসেবে দেব কাজ করেছিলেন।

চলচ্চিত্র জীবন

২০০৬ সালে প্রবীর নন্দী নির্মিত ‘অগ্নিশপথ’ সিনেমায় মাধ্যমে প্রথম অভিনয় জীবনে পদার্পন করেন দেব। এই সিনেমায় তার বিপরীতে অভিনয় করেছিলেন রচনা ব্যানার্জী। ছবিটি বক্স অফিসে তেমন সাফল্য পায়নি। দেব এর দ্বিতীয় ছবি রবি কিনাগী নির্মিত ও শ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্মস কর্তৃক প্রযোজিত “আই লাভ ইউ”, এই ছবিতে তার বিপরীতে দেখা যায় অভিনেত্রী পায়েল সরকারকে। ছবিটি বক্স অফিসে সাফল্য পেয়েছিল এবং টলিউডে অভিনেতা দেব এর নিজের জায়গা করে নেয়। এই ছবির পর ১৪ মাস অভিনয় থেকে নিজেকে দূরে রেখে মুম্বাই গিয়ে বিখ্যাত কোরিওগ্রাফার এজাজ গুলাবের কাছে নাচ ও ফাইটিং শেখেন তিনি।

এরপর ২০০৮ সালে রবি কিনাগী পরিচালিত “প্রেমের কাহিনী” ছবিতে কোয়েল মল্লিকের সাথে জুটি বাধেন দেব, এবং ওই বছরই আরও একটি সিনেমা “মন মানে না” তে কোয়েল এবং দেব এর জুটির ভক্ত হয়ে যায় সিনেমাপ্রেমী মানুষ।

এরপর ২০০৯ সালে রাজ চক্রবর্তী পরিচালিত ” চ্যালেঞ্জ” ছবিতে শুভশ্রী গাঙ্গুলীর বিপরীতে অভিনয় করেন দেব । এই ছবিটি সুপার হিট হয়। এবং টলিউডের পরিচিত মুখ হয়ে যায় দেব। একের পর এক সিনেমার অফার আসে তার কাছে। ২০১০ সালে তিনি পান স্টার আনন্দ সেরা নতুন অভিনেতার অ্যাওয়ার্ড ।

এরপর “সেদিন দেখা হয়েছিল”, ” দুই পৃথিবী”, “পাগলু”, ইত্যাদি সিনেমায় অভিনয় করেন তিনি।
২০১১ সালে সুজিত মন্ডল পরিচালিত রোমিও ছবিতে শুভশ্রী গাঙ্গুলীর বিপরীতে অভিনয় করেন দেব । এই ছবিটিও দর্শকদের প্রশংসা লাভ করে।
২০১২ সালে এস্‌কে মুভি প্রযোজিত “খোকাবাবু” ছবিতে শুভশ্রী গাঙ্গুলীর বিপরীতে দেখা যায় তাকে। এই ছবিটি একনাগাড়ে ৩০০ দিন থিয়েটারে চলে রেকর্ড গড়ে। দেব এর সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য সিনেমা গুলি হল ” চ্যালেঞ্জ ২”, ” খোকা ৪২০ ” ” রংবাজ” ” চাঁদের পাহাড়”, “বুনো হাঁস”, “আরশিনগর”, “ককপিট”, ” যোদ্ধা-দ্য ওয়ারিয়র”, ইত্যাদি।

রাজনৈতিক জীবন

অভিনেতা দেব বর্তমানে সাংসদ দেব, ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে তিনি ঘাটাল থেকে তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন এবং বিপুল ভোটে জয়লাভ করেন।

ব্যক্তিগত জীবন

অভিনেতা দেব এর সাথে হিট অভিনেত্রী শুভশ্রী গাঙ্গুলীর জুটি পর্দায় বেশ জনপ্রিয় ছিল। দর্শকদের একের পর এক বহু সুপারহিট সিনেমা উপহার দিয়েছেন এই জুটি। যার মধ্যে আছে পরাণ যায় জ্বলিয়া রে, চ্যালেঞ্জ, খোকাবাবু, খোকা ৪২০ ইত্যাদি। একসময় শোনা যায় দেব এবং শুভশ্রী ব্যক্তিগত জীবনে প্রেমের সম্পর্কে আছেন। দীর্ঘ পাঁচ বছর পর তাদের ব্রেকঅাপ হয়ে যায়।

দেব শুভশ্রী

দেব এক সাক্ষাৎকারে মেনে নিয়েছিলেন যে তাদের মধ্যে এক সময় ভালোবাসার সম্পর্ক থাকলেও বর্তমানে তারা শুধুই বন্ধু। শুভশ্রী গাঙ্গুলীও এক সাক্ষাৎকারে জানান দেব তার জীবনের প্রথম ভালোবাসা।তবে সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসার পর দীর্ঘসময় এই জুটিকে আর একসাথে দেখা যায়নি।

বর্তমানে শুভশ্রী রাজ চক্রবর্তীর সাথে বিবাহিত জীবনে সুখী। এবং অভিনেতা দেব এর সাথে রুক্মিণী মৈত্র র সম্পর্কে আছেন বলেই শোনা যায় টলিপাড়ায়।।

দেব ও রুক্মিণী

চ্যাম্প’, ‘ককপিট’ ও ‘কবীর’ পরপর তিনটি ছবিতে কাজ করার পর দেব ও রুক্মিণীর সম্পর্কের কথা ছড়িয়ে পড়ে সর্বত্র। তবে বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে একে অপরের বিষয়ে কথা বললেও, সরাসরি সম্পর্কের স্বীকার করেননি এই দুই তারকা, তবে ইঙ্গিতে ইশারায় বুঝিয়ে দিয়েছেন নিজেদের সম্পর্কের কথা।

দেব এর সিনেমা

  1. অগ্নিশপথ
  2. আই লভ ইউ
  3. প্রেমের কাহিনী
  4. চিরদিনই তুমি যে আমার
  5. মন মানে না
  6. চ্যালেঞ্জ
  7. পরাণ যায় জ্বলিয়া রে
  8. দুজনে
  9. জ্যাকপট
  10. বলো না তুমি আমার
  11. লে ছক্কা
  12. একটি তারার খোঁজে
  13. দুই পৃথিবী
  14. সেদিন দেখা হয়েছিল
  15. পাগলু
  16. রোমিও
  17. খোকাবাবু
  18. পাগলু ২
  19. চ্যালেঞ্জ ২
  20. বাওয়ালি আনলিমিটেড
  21. খোকা ৪২০
  22. রংবাজ
  23. চাঁদের পাহাড়
  24. অভিশপ্ত নাইটি
  25. বুনো হাঁস
  26. যোদ্ধা-দ্য ওয়ারিয়র
  27. হিরোগিরি
  28. শুধু তোমারই জন্য
  29. আরশীনগর
  30. কেলোর কীর্তি
  31. লাভ এক্সপ্রেস
  32. জুলফিকার
  33. চ্যাম্প
  34. ককপিট
  35. আমাজন অভিযান
  36. কবীর
  37. হইচই আনলিমিটেড কিডনাপ
  38. পাসওয়ার্ড
  39. সাঁঝবাতি
  40. গোলন্দাজ

পুরস্কার –

অভিনয় জগতে পা রাখার পর থেকেই তার অভিনয় প্রশংসিত হয়েছে। প্রচুর পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল –

  • আনন্দলোক অ্যাওয়ার্ড(২০০৯)
  • আনন্দলোক অ্যাওয়ার্ড (২০০৯)
  • স্টার জল্‌সা এন্টারটেইনমেন্ট অ্যাওয়ার্ড(২০১০)
  • টেলি সিনে অ্যাওয়ার্ড (২০১০)
  • স্টার আনন্দ সেরা বাঙালি অ্যাওয়ার্ড (২০১০)
  • বিগ বাংলা মুভি অ্যাওয়ার্ড (২০১১)
  • স্টার জল্‌সা এন্টারটেইনমেন্ট অ্যাওয়ার্ড (২০১১)
  • জি বাংলা অ্যাওয়ার্ড (২০১২)
  • ১৩তম টেলি সিনে অ্যাওয়ার্ড(২০১৩)
  • স্টার জলসা এন্টারটেইনমেন্ট অ্যাওয়ার্ড (২০১৪)
  • জি বাংলার গৌরব সম্মান (২০১৪ )
  • বিএফজেএ অ্যাওয়ার্ড (২০১৪ )
  • আনন্দলোক অ্যাওয়ার্ড (২০১৪ )
  • জি বাংলার গৌরব সম্মান(২০১৪)
  • ১৪তম টেলি সিনে অ্যাওয়ার্ড (২০১৪)
  • টলিউড ন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড(২০১৪)

বিশেষ কিছু তথ্য

২০১১ সালের নভেম্বরে সানন্দা টিভিতে সম্প্রচারিত ধারাবাহিক সবিনয় নিবেদন-এ দেব অতিথি হিসেবে আসেন। ২০১২ সালের মার্চে সানন্দা টিভিতে সম্প্রচারিত হোলির এক অনুষ্ঠানেও তাকে দেখা যায়।
২০১০ সালের ২০১১ সালে জি বাংলায় সম্প্রচারিত মীরাক্কেল আক্কেল চ্যালেঞ্জারে অতিথি বিচারক হিসেবে আসেন। দাদাগিরি সীজন ২, সীজন ৪, সীজন ৭ এও দেখা যায় দেব কে। এছাড়াও ডান্স বাংলা ডান্সে মিঠুন চক্রবর্তীর স্থানে প্রধান বিচারকের ভূমিকায় তাকে দেখা যায়।

অভিনেতা দেব যে শুধুই অভিনয়ের দ্বারা মানুষের মন জিতেছে তাই নয়, তার বড় মন এর কারণেও দেব এর ভক্ত প্রচুর । করোনা কালীন পরিস্থিতিতে সকলে যখন আতঙ্কিত তখন মানুষের পাশে দাড়িয়ে মানবিকতার নজির গড়েছেন তিনি। কখনও থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত শিশুর সাহায্যে এগিয়ে গেছেন আবার সাংসদ দফতরকে পরিণত করেছেন আইসোলেশন ক্যাম্পে।

অভিনেতা দেব এর পাশাপাশি গায়ক দেব এর দেখা মেলে প্রথম ‘খোকা ৪২০’ এ, ওই সিনেমায় খোকা চালু চিজ গানটি গেয়েছিলেন দেব, এরপর চ্যাম্প ছবিতেই তিনি একটি গান গেয়েছেন।

ব্যক্তিগত জীবনে পশুপ্রেমী দেব এর খুব কাছের তাঁর দুই সারমেয় হ্যাপি আর লাকি৷ তাঁর পছন্দের রং লাল ও নীল, পছন্দের খাবার চিকেন বিরিয়ানি, ক্রিকেট খেলতে ভীষণ ভালোবাসেন অভিনেতা।

Close

Recent Posts