পিজ্জার খুঁটিনাটি ও রেসিপি ~ Everything about Pizza with Recipe in Bengali


পিজ্জা বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় খাবারগুলির মধ্যে একটি।  ইতালির নেপলস শহর থেকে বিশ্বের সবর্ত্র ছড়িয়ে পড়ে পিজ্জা। সাধারণত গোলাকৃতি মোটা রুটির ওপর বিভিন্ন রকমের টপিং এবং সস দিয়ে তৈরি হয় এই খাবারটি।  স্থান ভেদে এতে অনেক রকমারি প্রণালী দেখা যায়। ইতালির নেপল্‌স শহরের পিৎজা ক্রমে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে পড়েছে। বাংলাদেশ, ভারতে পিজ্জা ফার্স্ট ফুড হলেও ইউরোপের কিছু দেশে লাঞ্চ বা ডিনারেও পিজ্জা খাওয়া হয়। 

জেনে নিন কিভাবে পিজা আবিষ্কার হয়, ইতিহাস , পিজা ডে কি হয়।  সাথে জেনে নিন কিভাবে সুস্বাদু পিজা ঘরে বানাবেন মাইক্রোভেন ছাড়াই।

পিজ্জার ইতিহাস

আনুমানিক আঠারো থেকে উনিশ শতকে ইতালির নেপলসে প্রথম আধুনিক পিজ্জা তৈরি হতে শুরু করে  নেপোলিটান পাই নামে। ১৮০০ শতকে প্রথম আধুনিক পিজ্জা যিনি তৈরি করেছিলেন তার নাম  রাফায়েল এসপোসিটো।  তিনি প্রথম রাজা উম্বেরত ও রানী মারগারিটার জন্য চীজ, বেসিল, টমেটো দিয়ে পিজ্জা বানান, এবং সেটি রাজা উম্বেরত ও রানী মারগারিটার ভীষণ পছন্দ হয়, তারপর তার নাম দেওয়া হয় ‘পিৎজা মারগারিটা’ ।ছোট হোক বা বড় পিজ্জা প্রেমের বয়স নেই, পিজ্জার উপর ভালোবাসা উইকেন্ডে বেরোলেই বোঝা যায়। 

পিজ্জা দিবস

বিশ্বজুড়ে পিজ্জা দিবস পালিত হয় ৯ ই ফেব্রুয়ারি।পিজ্জার আকৃতির কারণে একাধিক বার গিনেস বুক রেকর্ড  তৈরি করেছে পিজ্জা। ১৯৯০ সালের ৪ ডিসেম্বর নরউডের একটি হাইপাএ মার্কেটে ৩৭.৪ মিটার ব্যসের পিজ্জা তৈরি হয়েছিল, যাতে ৪৫০০ কেজি ময়দা  ৯০ কেজি লবন, ৯০০ কেজি টমেটো এবং ১৮০০ কেজি পনির দেওয়া হয়েছিল।২০০৩ সালের ৩ নভেম্বর ইস্রায়েলে ১০০ মিটার দৈর্ঘ্যের দীর্ঘতম পিজ্জা তৈরি করা হয়েছিল।

pizza day explained in bangla

ঘরে পিজা বানাবার সহজ উপায়

পিজ্জা খেতে কম বেশি সকলেই ভালোবাসেন৷ অনেকেই ভাবেন ঘরে পিজ্জা তৈরি করা অনেক ঝক্কির ব্যাপার, কিন্তু তা একেবারেই নয়। খুব সহজেই ঘরে তৈরি করা যায় পিজ্জা, যা অর্ডার করা পিজ্জার মতো সুস্বাদু খেতে হবে।শুধু চিকেন বা ভেজ পিজ্জাই নয়, চাইলে ঘরে মাশরুম পিজ্জা, পনির পিজ্জাও তৈরি করা যায়, এগুলোও খেতে ভীষণ ভালো হয়। পিজ্জা খাবারটি দেখতে ভীষণ লোভনীয়, খেতেও তেমনই সুস্বাদু। শুধু মাত্র যে ওভেনেই পিজ্জা বানানো যায় তা কিন্তু নয়, কড়াইতেও পিজ্জা তৈরি করা যায়। 

পিজ্জা তৈরি করতে গেলে প্রথমেই তিনটে ধাপ মাথায় রাখতে হবে। প্রথমে পিজ্জা বেস কিভাবে তৈরি করবেন, তারপর টপিং-এর উপকরণ,এবং তারপর পিজ্জা সস এর উপকরণ। পিজ্জা বেস এবং পিজ্জা সস দোকানে আলাদা ভাবেও কিনতে পাওয়া যায়। 

১. চিকেন পিজ্জা তৈরির রেসিপি-

১. চিকেন পিজ্জা তৈরির রেসিপি-

পিজ্জা বেস তৈরির পদ্ধতি –

উপকরণ –৩ কাপ ময়দা, ১ চা চামচ ঈস্ট, প্রয়োজন মতো দুধ, হাফ চামচ চিনি, স্বাদ মতো  লবণ, প্রয়োজন মতো তেল,  

প্রণালী  – পিজ্জা বেস তৈরির জন্য প্রথমে গরম দুধে চিনি এবং ইস্ট  মিশিয়ে নিন, এবার ময়দার মধ্যে লবণ দিয়ে দুধের মিশ্রণ টা দিয়ে ভালোভাবে ডো তৈরি করুন। এরপর ৩০ মিনিট ডো টা রেখে তারপত তার থেকে বড় বড় লেচি কেটে প্রয়োজনে সামান্য তেল দিয়ে মোটা করে পিজ্জা বেস এর আকারে বেলে নিতে হবে। এর মধ্যে কাটা চামচ দিয়ে ছিদ্র করে নিলেই পিজ্জা বেস তৈরি হয়ে যাবে। 

টপিং-এর উপকরণ :

টপিং আপনি কি পিজ্জা বানাবেন তার উপর নির্ভর করবে। চিকেন পিজ্জা বানাতে চাইলে লাল,সবুজ, হলুদ রং এর ক্যাপ্সিকাম, ১ টি ছোট পেঁয়াজ, চিকেন কিমা, চিজ, গোলমরিচ

প্রণালী  – প্রথমে চিকেন ছোট করে কেটে তাতে সামান্য লবন দিয়ে মাখিয়ে হালকা করে ভেজে নিতে হবে উপরে  গোলমরিচ দিয়ে রেখে দিতে হবে। 

পিজ্জা সস তৈরির পদ্ধতি  :

উপকরণ – ২টি টমাটো, ১টা পেঁয়াজ,রসুন কিমা ১ টেবিল চামচ , লবণ স্বাদ মত,২ চামচ টমেটো ক্যাচাপ সামান্য গোলমরিচ গুঁড়ো ,  লঙ্কার গুঁড়ো হাফ চা চামচ,কাশ্মীরি লঙ্কার গুঁড়ো হাফ চা চামচ, চিলি ফ্লেক্স, সামান্য চিনি, 

পদ্ধতি – টমেটো হালকা সিদ্ধ করে উপরের ছাল তুলে নিন, এবার ছোট করে কেটে নিন। এবার ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে প্যানে তেল গরম করে তাতে   পেঁয়াজ,রসুন কুচি দিয়ে, টমেটো পিউরি, সামান্য লবন, চিনি দিয়ে একটু জল দিয়ে ঢেকে রাখতে হবে। এবার ২ চামচ টমেটো ক্যাচাপ দিয়ে একেবারে ঘন হয়ে এলে মশলা গুলো দিয়ে সবটা মিশে গেলে নামিয়ে নিতে হবে। 

এবার পিজ্জা বেস এর মধ্যে সস টা ভালো করে মাখিয়ে তার ওপর চিকেন কিমা,কেটে রাখা ক্যাপসিকাম এবং পেঁয়াজ টা দিয়ে তার উপর চীজ গ্রেট করে প্রিহিটেট ইলেক্টিক ওভেনে ১৮০-১৯০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে মিনিট  ১৫-২০মিনিট বেক করলেই তৈরি সুস্বাদু পিজ্জা।

ওভেন ছাড়াও পিজ্জা তৈরি সম্ভব

কড়াইতে পিজ্জা তৈরির জন্য প্রথমে ডো, টপিং, সস তৈরি করে নিন এবার কড়াইয়ে লবন দিয়ে গ্যাস গরম হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন, তারপর একটি স্ট্যান্ড বসিয়ে তারমধ্যে  পিজ্জাটা বসিয়ে ঢেকে দিন। হালকা আঁচে ১৫ মিনিট পর গ্যাস বন্ধ করে দেখুন পিজ্জা তৈরি।

bengali pizza recipe without micro oven

২. পনীর পিজ্জা তৈরির রেসিপি – 

উপকরণ – ২ কাপ আটা ,হাফ চা চামচ বেকিং পাউডার, হাফ চা চামচ নুন, হাফ কাপ টক দই
প্রত্যেকটা উপকরণ ভালো ভাবে মিশিয়ে ডো তৈরি করে রেখে দিতে হবে ৩০ মিনিট। তারপর মোটা করে বেলে তাতে কাটা চামচ দিয়ে ছিদ্র করে দিতে হবে।  এরপর কড়াইতে লবন দিয়ে গরম হলে তাতে একটি স্ট্যান্ড বসিয়ে একটি পাত্রে পিজ্জা বেস টার দুধারে তেল ব্রাশ করে সেকে নিতে হবে।

  
টপিং এর জন্য লাগবে–  সবুজ ক্যাপ্সিকাম, হলুদ ক্যাপ্সিকাম, লাল ক্যাপ্সিকাম, ৫০ গ্রাম পনির, হাফ কাপ কর্ন সেদ্ধ করা, ১ টা পেঁয়াজ কুচি, ১ চা চামচ অরিগ্যানো, ১ চা চামচ চিলি ফ্লেক্স, গ্রেট করা মোজ্জারেলা চিজ ।

টপিং এর সমস্ত উপকরণ হালকা করে ভেজে রেখে দিতে হবে। এবার পিজ্জা বেস এর মধ্যে সস মাখিয়ে টপিং দিয়ে তার উপর গ্রেট করা মোজ্জারেলা চিজ ছড়িয়ে  ননস্টিক ফ্রাইপ্যানে গ্যাসে বসিয়ে ১০ মিনিট ঢাকা দিয়ে স্লো ফ্লেমে রেখে নামিয়ে নিলেই তৈরি পনীর পিজ্জা ।


৩. মাশরুম পিজ্জা –

পিজ্জা সস এবং ডো আগেই উল্লেখ করা আছে কিভাবে বানাতে হবে।

টপিং এর জন্য – সবুজ ক্যাপ্সিকাম, হলুদ ক্যাপ্সিকাম, লাল ক্যাপ্সিকাম,মাশরুম হাফ বাটি ,১ চা চামচ অরিগ্যানো,১ চা চামচ চিলি ফ্লেক্স, গ্রেট করা মোজ্জারেলা চিজ ,১ চা চামচ ধনেগুঁড়ো,১ চা চামচ গরম মশলা,১ চা চামচ আদা ও রসুন বাটা, ১ চা চামচ লঙ্কার গুড়ো ,প্রয়োজন মতো তেল ।


পদ্ধতি–  প্রথমে মাশরুম গুলো ভালোভাবে ধুয়ে তাতে লঙ্কার গুড়ো, ধনে গুড়ো, গরম মশলা, আদা ও রসুন বাটা,নুন দিয়ে মেখে ১০ মিনিট রেখে গরম তেল এ ভেজে নিতে হবে। এবার পিজ্জা বেস এর উপর পিজ্জা সস দিয়ে তার উপর মাশরুম দিয়ে, ক্যাপসিকাম কুচি দিয়ে চিজ ছড়িয়ে দিতে হবে। উপর দিয়ে ১ চা চামচ অরিগ্যানো ১ চা চামচ চিলি ফ্লেক্স ছড়িয়ে ননস্টিক প্যানে ১০-১৫ মিনিট কম আঁচে রেখে তৈরি করে নিন মাশরুম পিজ্জা।

Close

Recent Posts