কলকাতার একাধিক জনপ্রিয় সিঙ্গল স্ক্রিন হলে ঝুলল তালা, যার মধ্যে আছে প্রিয়া, প্রাচী এবং আরও


দীর্ঘদিনের বেশ কিছু সিনেমাহল যার সাথে প্রচুর মানুষের স্মৃতি জড়িয়ে আছে ,করোনার জেরে বন্ধ হয়ে গেল। করোনার আগে সিনেমাহল যেভাবে চলছিল করোনা আবহে তা একেবারে শূন্যতে গিয়ে দাড়িয়েছে, কোভিডের জেরে দীর্ঘদিন সিনেমাহল গুলি বন্ধ থাকার পর বিধি মেনে সিনেমাহল খোলার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। তবে সিনেমাহল খুললেও দেখা মেলেনি দর্শকদের, লাভের কথা তো দূর বরং সিনেমাহল খোলার পর আরও বেশি ক্ষতির মুখে পড়ছিলেন সিনেমাহল গুলির মালিক, আর চালাতে না পারায় তাই বন্ধ গেল জনপ্রিয় বেশ  কয়েকটি সিনেমাহল, যার মধ্যে আছে প্রিয়া, প্রাচী, মেনকা, জয়া, অশোকা, ইন্দিরা সিনেমাহল।

এমনিতেই সিনেমা হল খোলার পর ৫০ শতাংশ দর্শক যেতে পারবে বলে জানানো হয়েছিল , একেই কোনো বড় বাজেটের সিনেমা মুক্তি পাচ্ছে না, কিছু পুরনো সিনেমা দেখানো হচ্ছে, সিনেমাহল গুলিতে সারাদিনে চার পাঁচ জনের দেখাও মিলছে কিনা সন্দেহ, হিন্দি ছবির মুক্তিও এখন বন্ধ, এই অবস্থায় শুধু মাত্র বাংলা ছবি দিয়ে হল চলছে না। তবে এই হল গুলি বন্ধ হওয়ায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে।

কেউ বলছেন ব্যবসাতে লাভ ক্ষতি তো থাকবেই, কিন্তু তার জন্য বন্ধ করে দেওয়া ঠিক নয়, আবার অনেকে বলছেন সিনেমাহল দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর খুলেছে, এই অবস্থায় যদি মাত্র কয়েক দর্শকের দেখা মেলে সেই অবস্থায় সত্যি চালানো সম্ভব নয়। কোভিডের জেরে মার্চ মাস থেকে বন্ধ হয়ে গেছিল সিনেমাহল গুলি, এরপর ১৫ অক্টোবর সিনেমা হল খোলার অনুমতি মেলে। তবে উৎসবের মরশুমে আবার মানুষের সাড়া জাগানো প্রতিক্রিয়া পাবে ভেবে খোলা হলেও একেবারেই ফাঁকা ছিল এই সমস্ত সিনেমাহল, তাই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

Recent Posts

link to জাতির জনক মহাত্মা গান্ধীর জীবন কাহিনী - Story of Mahatma Gandhi's Life in Bengali

জাতির জনক মহাত্মা গান্ধীর জীবন কাহিনী - Story of Mahatma Gandhi's Life in Bengali

পরাধীনতার নিরন্ধ্র অন্ধকারে অসহায় নিপীড়িত মানুষের দুঃসময়ে তিনি নিয়ে এলেন...