উত্তম কুমার এবং সুচিত্রা সেনের জনপ্রিয় ২০ টি সিনেমা


বাংলা চলচ্চিত্রে সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং সেরা জুটি ছিল মহানায়ক উত্তম কুমার এবং মহানায়িকা সুচিত্রা  সেন এর। প্রায় ৩০ টিরও বেশি সুপারহিট ছবি তারা উপহার দিয়েছেন দর্শককে। উত্তম -সুচিত্রা জুটি বাংলা চলচ্চিত্রে এক রোম্যান্টিক আবহ তৈরী করে। তাদের সিনেমা জগতে আগমনের পর দর্শক উপভোগ করেছে রোমাণ্টিকতার স্বাদ।

তাদের অভিনয় মুগ্ধ করেছে সমস্ত বাঙালিকে। একের পর এক সুপারহিট ছবির মাধ্যমে বাংলা সিনেমাকে এক উচ্চপর্যায়ে নিয়ে গেছিলেন উত্তম কুমার এবং সুচিত্রা সেনের জুটি। তাদের ‘ এই পথ যদি না শেষ হয় ‘ হোক কিংবা ‘এই রাত তোমার আমার ‘ হোক আজও চিরসবুজ এই জনপ্রিয় জুটির সিনেমা এবং সেইসব গান। উত্তম কুমার এবং সুচিত্রা সেন এর জনপ্রিয় ২০ টি সিনেমা হল- 

১. পথে হল দেরী

১৯৫৭ সালে মুক্তি  অভিনেতা উত্তম কুমার এবং সুচিত্রা সেন  অভিনীত  চলচ্চিত্রটি।  বাংলা চলচ্চিত্র জগতে  প্রথম রঙিন চলচ্চিত্র ‘পথে হল দেরী’ প্রতিভা বসুর গল্প অবলম্বনে নির্মিত। এই সিনেমায় প্রত্যেকের অভিনয় মন কাড়ে দর্শকের। উত্তম সুচিত্রা জুটির অন্যতম জনপ্রিয় সিনেমা এটি। এই চলচ্চিত্রটির ‘ এ শুধু গানের দিন, এ লগন গান শোনাবার’ গানটি বেশ জনপ্রিয়। 

২. হারানো সুর

১৯৫৭  সালে মুক্তি পায় সুচিত্রা সেন ও উত্তম কুমার অভিনীত রোম্যান্টিক চলচ্চিত্র  ‘হারানো সুর’। এই ক্লাসিকটির চিত্রনাট্য লিখেছিলেন নৃপেন্দ্রকৃষ্ণ চচট্টোপাধ্যায়।  জনপ্রিয় এই সিনেমাটি  তামিল ভাষায় ‘অমারা দীপম’ এবং হিন্দিতে ‘অমর দীপ’ নামে চিত্রিত হয়।

৩.  একটি রাত 

জনপ্রিয় হাসির বাংলা চলচ্চিত্র একটি রাত মুক্তি পায় ১৯৫৬ সালে।  সাহিত্যিক বলাই চাঁদ মুখোপাধ্যায়ের ভীমপালশ্রী গল্প অবলম্বনে নির্মিত হয়েছিল এই চলচ্চিত্রটি, যার মুখ্য ভূমিকায় ছিলেন উত্তম কুমার এবং সুচিত্রা সেন।

৪. সপ্তপদী

সাহিত্যিক তারাশঙ্কর বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাহিনি অবলম্বনে নির্মিত জনপ্রিয় বাংলা চলচ্চিত্র ‘সপ্তপদী’।১৯৬১ সালে মুক্তি পাওয়া এই চলচ্চিত্রে মুখ্য ভূমিকায় ছিল উত্তম কুমার, সুচিত্রা সেন।এই সিনেমাটির পরিচালক ছিলেন অজয় কর। দুই বিপরীত ধর্মের তরুণ হৃদয়ের প্রেম এবং তাদের লাভ স্টোরি এই সিনেমার কাহিনি। এই সিনেমাটির গান ‘ এই পথ যদি না শেষ হয়’ আজও সমান জনপ্রিয়।  

৫. সবার উপরে

উত্তম কুমার এবং সুচিত্রা সেন অভিনীত জনপ্রিয় বাংলা চলচ্চিত্র ‘সবার উপরে’ মুক্তি পায় ১৯৫৫ সালে। এই সিনেমাটি হিন্দিতেও নির্মিত হয় ‘ কালা পানি’ নামে।

৬. সাঁঝের প্রদীপ

সুধাংশু মুখোপাধ্যায়ের পরিচালনায় ১৯৫৫ সালে মুক্তি পেয়েছিল উত্তম কুমার এবং সুচিত্রা সেনের জনপ্রিয় চলচ্চিত্র সাঁঝের প্রদীপ। 

৭. চাওয়া পাওয়া

তরুণ মজুমদারের পরিচালনায় ১৯৫৯ এ মুক্তি পায় বাংলা রোমান্টিক কমেডি ছবি চাওয়া পাওয়া।উত্তম কুমার, সুচিত্রা সেন অভিনীত অন্যতম জনপ্রিয় এই ছবিটি।  

৮. সাড়ে ৭৪

উত্তম সুচিত্রা জুটির প্রথম ছবি সাড়ে ৭৪। কমেডি তে ভরপুর এই ছবিটি।১৯৫৩ সালে মুক্তি পাওয়া এই ছবিটির পরিচালক ছিলেন নির্মল দে। এই ছবিটির মাধ্যমেই প্রথম দশর্কদের সামনে এসেছিল রোমান্টিক এই জুটি যা সেই সময়কার সেরা জুটি ছিল, যাদের অভিনয় দর্শকদের মুগ্ধ করেছে একাধিক সিনেমায়।

৯. গৃহদাহ

শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের উপন্যাস অবলম্বনে রচিত ‘গৃহদাহ’ উত্তম – সুচিত্রা জুটির অন্যতম সেরা ছবি। ১৯৬৭ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত এই ছবিতে মহিম এর ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন উত্তম কুমার, এবং অচলার ভূমিকায় দেখা যায় সুচিত্রা সেন কে। 

১০. সাগরিকা

উত্তম কুমার, সুচিত্রা সেন অভিনীত অন্যতম সেরা চলচ্চিত্র সাগরিকা। এই সিনেমার ‘ আমার স্বপ্নে দেখা রাজকন্যা থাকে,সাত সাগর আর তেরো নদীর পারে’ কালজয়ী এই গানটি আজও জনপ্রিয়। ১৯৫৬ সালে মুক্তি পায় ছবিটি। 

১১. শাপমোচন

১৯৫৫ সালে ঔপন্যাসিক ফাল্গুনী মুখোপাধ্যায় শাপমোচন উপন্যাস অবলম্বনে নির্মাণ করেন অসাধারণ এই ছবিটি। রোমান্টিক এই চলচ্চিত্রে উত্তম কুমার এবং সুচিত্রা সেনের অভিনয় দর্শকদের অভিভূত করে।

১২.ইন্দ্রানী

১৯৫৮ সালে মুক্তি পাওয়া ইন্দ্রানী চলচ্চিত্রে মুখ্য ভূমিকায় দেখা যায় উত্তম কুমার এবং সুচিত্রা সেন কে। শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের শ্রীকান্ত উপন্যাস অবলম্বনে হরিদাস ভট্টাচার্য এই ছবিটির চিত্রনাট্য লেখেন। এই সিনেমায় রাজলক্ষ্মীর ভূমিকায় দেখা যায় সুচিত্রা সেনকে।এবং শ্রীকান্ত র ভূমিকায় ছিলেন উত্তম কুমার। 

১৩. শিল্পী

১৯৫৬ সালে মুক্তি প্রাপ্ত শিল্পী ছবিটি একটি ট্র্যাজিক লাভ স্টোরি।  উত্তম কুমার এবং সুচিত্রা সেন এর অন্যতম সেরা ছবিগুলির মধ্যে একটি হল শিল্পী। 

১৪. জীবনতৃষ্ণা

অসিত সেন পরিচালিত উত্তম কুমার এবং সুচিত্রা সেন পরিচালিত জীবনতৃষ্ণা ছবিটি মুক্তি পায় ১৯৫৭ সালে। ছবিটির সংগীত পরিচালনা করেছেন ভূপেন হাজারিকা। 

১৫. অগ্নিপরীক্ষা

উত্তম কুমার এবং সুচিত্রা সেন অভিনীত জনপ্রিয় রোমান্টিক বাংলা চলচ্চিত্র অগ্নিপরীক্ষা। সাহিত্যিক আশাপূর্ণা দেবীর কাহিনি অবলম্বনে তৈরী হয় ছবিটি।১৯৫৪ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত   এই  ছবির পরিচালনায় ছিল অগ্রদূত । এই চলচ্চিত্রটি হিন্দিতে পুনর্নির্মাণ করা হয়েছিল ১৯৬৭ সালে, হিন্দিতে ছবিটির নাম ছিল ছোটি সি মুলাকাত। 

১৬. ত্রিযামা

উত্তম কুমার, সুচিত্রা সেনের অসামান্য এক লাভ স্টোরি ত্রিযামা, ১৩২ মিনিটের এই ছবিটি মুক্তি পায় ১৯৬৫ সালে। সুবোধ ঘোষের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত হয় অগ্রদূত পরিচালিত বাংলা রোমান্টিক চলচ্চিত্র ত্রিযামা।  সানরাইজ ফিল্মসের ব্যানারে মুক্তি প্রাপ্ত এই চলচ্চিত্রটির সংগীত পরিচালনা করেছিলেন নচিকেতা ঘোষ। 

১৭.  মরণের পরে

গজেন্দ্রকুমার মিত্রের কাহিনি অবলম্বনে নির্মিত মরণের পরে চলচ্চিত্রটির পরিচালক ছিলেন সতীশ দাশগুপ্ত।উত্তম কুমার এবং সুচিত্রা সেন অভিনীত এই ছবিটি একটি অপরাধ এবং রহস্য মূলক বাংলা চলচ্চিত্র। এই চলচ্চিত্রটি মুক্তি পায় ১৯৫৪ সালে হিমালয় আর্ট প্রোডাকশন ব্যানারে। 

১৮. বিপাশা

১৯৬২ সালে মুক্তি প্রাপ্ত চলচ্চিত্র বিপাশা, উত্তম কুমার এবং সুচিত্রা সেনের হিট ছবিগুলির মধ্যে অন্যতম।  অগ্রদূত দ্বারা পরিচালিত এই চলচ্চিত্রটি দেশভাগের গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে। 

১৯. ওরা থাকে ওধারে

সুকুমার দাশগুপ্ত পরিচালিত বাংলা রোমান্টিক কমেডি চলচ্চিত্র ওরা থাকে ওধারে। যা ঘটি এবং বাঙালদের বিরোধ দেখানো হয়েছে।  প্রেমেন্দ্র মিত্রের গল্প অবলম্বনে নির্মিত ত্রই চলচ্চিত্রটি  এস.এম প্রোডাকশন ব্যানারে মুক্তি পায় ৫ ফেব্রুয়ারী ১৯৫৪ সালে। । এই চলচ্চিত্রটির মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন উত্তম কুমার এবং সুচিত্রা সেন।

২০. অন্নপূর্ণার মন্দির

নরেশ মিত্র পরিচালিত নিরুপমা দেবীর ‘অন্নপূর্নার মন্দির’ নামে উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত হয়েছিল এই চলচ্চিত্র টি। উত্তম কুমার এবং সুচিত্রা সেন অভিনীত এই ছবিটি ১৯৫৪ সালে চিত্র মন্দিরের ব্যানারে মুক্তি পায়।  জাতীয় চলচ্চিত্র পুরষ্কারও লাভ করে এই সিনেমাটি ।উত্তম সুচিত্রা জুটির অসামান্য অভিনয় দর্শকদের মনে দাগ কাটে। 

Close

Recent Posts