কাশ্মীরের ডাল লেকে ভারতের একমাত্র ভাসমান ডাকঘর!!! গল্প নয়, সত্যি । World’s only Floating Post Office in Kashmir, India


বর্তমান যুগে টেকনোলজি ও প্রযুক্তির প্রভূত উন্নতি হওয়ার সাথে সাথে এসএমএস, ইমেইল ,হোয়াটস,ফেসবুক ইত্যাদি সোশ্যাল মিডিয়ার রমরমার কারণে আজকাল হাতে করে ডাকটিকিটে চিঠি লেখার পাঠ প্রায় উঠে গেছেই বললেও অত্যুক্তি হবে না। আগের থেকে ডাকঘর তার গুরুত্ব হারিয়েছে ঠিকই , কিন্তু তা বলে একদম নিঃশেষ হয়ে যায়নি ভারতের পোষ্ট অফিসগুলি , টিমটিম করে এখনো তা রয়ে গেছে। ।অনেকেই হয়তো অবগত যে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি ডাকঘর রয়েছে ভারতে। কিন্তু এ কথা অনেকেই হয়তো জানেন না যে ভারতে একটি ভাসমান ডাকঘর ও উপস্থিত আছে এবং সেটি অবস্থিত ভারতের ভূস্বর্গ জম্মু ও কাশ্মীরে ।

FLOATING-POST-OFFICE (1)

ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় ও সুন্দর পর্যটনকেন্দ্র যা কিনা সারা বিশ্বের পর্যটকদের কাছে আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু জম্মু ও কাশ্মীরের রাজধানী শ্রীনগর~ এর অন্যতম প্রধান আকর্ষণ হল ডাল লেক। পাহাড়ের মাঝে থাকা এই চমৎকার হ্রদের বাড়তি আকর্ষণ হল ভারতের এই প্রথম ভাসমান ডাকঘরের উপস্থিতি !

kashmir-floating-post-office (1)

এই ডাল লেকের মনোরম জলেই শিকারার মাধ্যমে চলে কেনাবেচা। এই ভাসমান বাজারে ফল, সব্জি থেকে শুরু করে জামা কাপড় সবই পাওয়া যায়। প্রধাণত শিকারার এ সকল ছোট ব্যবসায়ীরাই নৌকো করে এসে এই ভাসমান ডাকঘরে নিজেদের টাকা জমা রাখেন। ডাল লেকের এই ভাসমান ডাকঘরে প্রতিমাসে গড়ে প্রায় ২ কোটি টাকার লেনদেন হয়ে থাকে।

জম্মু কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লাহ ২০১১ সালের আগস্ট মাসে এই অভিনব ভাসমান পোস্ট অফিসটি উদ্বোধন করেছিলেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন তৎকালীন যোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী শচীন পাইলট মহাশয় ও। ইন্ডিয়া পোস্টের এই নতুন উদ্যোগ , হ্রদে ভ্রমণকারী পর্যটকদের কেবলমাত্র দৃষ্টি ই আকর্ষণ করেনি তাদের জন্য এই ভাসমান ডাকঘরটি এক নতুন এবং অভিনব পর্যটন স্থান হিসেবে সাব্যস্ত হয়েছে।

floating-post

দুটি বিস্তৃত কামরা বিশিষ্ট বিশাল এই হাউসবোটে একটি ঘর পোস্ট অফিস হিসাবে ব্যবহার করা হয়ে থাকে এবং অপর ঘরটিতে ডাকব্যবস্থা সংক্রান্ত একটি ঐতিহ্যমণ্ডিত জাদুঘর আছে। তাছাড়াও এখানে একটি দোকান রয়েছে যেখানে ডাকটিকিটের পাশাপাশি ছবির পোস্টকার্ড, গ্রিটিংস কার্ড, স্থানীয় স্যুভেনির আইটেম, স্টেশনারী এবং কাশ্মীর সম্পর্কিত বিভিন্ন ধরনের পুস্তক উপলব্ধ যা পর্যটকদের মনোরঞ্জনের জন্য যথেষ্ট ।

ভাসমান এই পোস্ট অফিসের আর একটি বিশেষ বৈশিষ্ট হল এই যে এখান থেকে যে চিঠিগুলি পোস্ট করা হয়ে থাকে সেগুলিতে ডাল হ্রদ এবং শ্রীনগরের অন্যান্য আকর্ষণকেন্দ্র গুলির ছবিসহ খামে ভরে পোস্ট অফিসে বিশেষ ছাপ দিয়ে প্রেরণ করা হয়। অধিকাংশ ক্ষেত্রে ভ্রমণের স্মৃতি হিসাবে পর্যটকরা তাদের পরিচিতদের এগুলি পাঠিয়ে থাকেন।  শান্ত এবং শীতল পরিবেশে ডাল লেকের জলে ভেসে বেড়ানো এই ডাকঘর শুধু কাশ্মীরের নয়,সারা ভারতের গর্ব।





Close

Recent Posts