সদ্য মুক্তি প্রাপ্ত ধারাবাহিক ‘পান্ডব গোয়েন্দা’ র ট্রেলার নিয়ে বিতর্ক


ষষ্ঠীপদ চট্টোপাধ্যায়ের লেখা ‘পান্ডব গোয়েন্দা’ ছোটদের গোয়েন্দাবাহিনীর কাহিনি, বেশ জনপ্রিয় এই সিরিজটির প্রথম প্রকাশ ১৯৮১ সালে। হাওড়ার বাসিন্দা পাঁচ জন বাবলু, বিলু, ভোম্বল, বাচ্চু আর বিচ্চু এবং তাদের পোষ্য কুকুর পঞ্চু কে নিয়ে গড়ে উঠেছে পান্ডব গোয়েন্দা বাহিনী।

পাণ্ডব গোয়েন্দা বইয়ের প্রচ্ছদ
পাণ্ডব গোয়েন্দা বইয়ের প্রচ্ছদ

রহস্যের সন্ধানে পাণ্ডব গোয়েন্দারা ধীরে ধীরে সময়ের সাথে ভিন রাজ্যে যায় রহস্যের সমাধানে । তিরিশটিরও বেশি বই প্রকাশিত হয়েছে পান্ডব গোয়েন্দা দের নিয়ে, শুকতারা, আনন্দমেলার পাতায় পাণ্ডব গোয়েন্দাদের কাহিনি পড়ার যে এক রোমাঞ্চ তা আবার পাঠকদের সামনে পর্দায় নিয়ে আসছে জি বাংলা।

যেখানে বাবলুর ভূমিকায় অভিনয় করছেন রব দে, বিলুর হচ্ছেন ঋষভ চক্রবর্তী, ভোম্বলের চরিত্রে ময়ূখ চ্যাটার্জি। বাচ্চু র ভূমিকায় অনুমিতা দত্ত এবং বিচ্চুর ভূমিকায় শ্রীতমা মিত্র অভিনয় করছেন।
পাণ্ডব গোয়েন্দার স্রষ্টা ষষ্ঠীপদ চট্টোপাধ্যায় কিন্তু কোনওদিনও সিনেমা বা টিভি সিরিয়ালের ব্যাপারে বিশেষ আগ্রহী ছিলেন না কিন্তু কেউ এসে বললে তিনি না করতে পারেন নি।

জি বাংলার পাণ্ডব গোয়েন্দা সিরিয়ালের পোস্টার
জি বাংলার পাণ্ডব গোয়েন্দা সিরিয়ালের পোস্টার

সম্প্রতি এই সিরিজের ধারাবাহিকের ট্রেলার মুক্তি পাওয়ার পরেই বির্তকের একটা হালকা ঝড় চলছে,
এই বির্তকের সূত্রপাত ট্রেলারে দেখানো বাবলু আর বাচ্চুর মধ্যে চোখের ইশারায়, প্রেমের ইঙ্গিতকে কেন্দ্র করে এবং তার সাথেই বাজছে সম্প্রতি জনপ্রিয় বাংলা সিনেমার গান “প্রাণ দিতে চাই, মন দিতে চাই…

অনেকেই এই ঘটনাটিকে ভালো চোখে নেয়নি, আবার অনেকের মতে সময় যত এগিয়েছে এই পাঁচ চরিত্রকে কৈশোর থেকে যৌবনে উপনীত করেছেন লেখক, এবং কাহিনি যত এগিয়েছে দেখা গেছে অভিযানে বাবলুর সঙ্গে প্রায়ই অনেক তরুণীর ঘনিষ্ঠ বন্ধুত্ব, তাই বাবলু ও বিচ্চুর মধ্যে প্রেমের ইঙ্গিতে ভুল কিছু নেই।
তবে পাণ্ডব গোয়েন্দাদের মধ্যে সকলে ভাই-বোনের মতো, তাই তাদের মধ্যে রোমান্স দেখানো ঠিক নয় বলেই মনে করছেন এই কাহিনির স্রষ্টা।

পাণ্ডব গোয়েন্দারা যখন অ্যাডাল্ট হয়েছে সেই সময় তাদের কিশোর বয়সে স্বাভাবিক ভাবেই রোমান্সের একটি দিক দেখানো হয়েছে আনন্দমেলায় যে উপন্যাস গুলোর মধ্যে কিন্তু সেই টিমের নিজেদের মধ্যে তেমন সম্পর্ক হতে পারে না।

দেখে নিন পাণ্ডব গোয়েন্দা সিরিয়ালের ট্রেলার

তবে এই ট্রেলার দেখে দর্শকদের আরও একটা মন খারাপের জায়গা উঠে এসেছে, পান্ডব গোয়েন্দাদের যৌবনের অ্যাডভেঞ্চারই দেখানো হবে বলে মনে করা হচ্ছে, বাঙালির আবেগের অনেকটা জুড়ে থাকা ছোটোবেলার স্কুল-পড়ুয়া পান্ডব গোয়েন্দাদের অভিযানগুলি একেবারেই বাদ পড়বে এই ভাবনায় অনেকেরই কষ্ট হয়েছে।

তবে লেখকের অনুমতি পাওয়ার পরই কাজটা শুরু হয়েছে কিন্তু ধারাবাহিকের এই সব পরিবর্তন স্রষ্টা মেনে নিতে পারছেন না, এই বিষয়ে চূড়ান্ত হতাশ তিনি।

ছেলেবেলার নস্টালজিক সেই সময় আবার টিভির পর্দায় দর্শক কতটা উপভোগ করবে সেটা সময় বলবে।

Close

Recent Posts