দীর্ঘ সাত মাস পর উৎসবের মরশুমে ভক্তদের জন্য খুলে গেল কামাখ্যা মন্দির


দীর্ঘ সাত মাস পর উৎসবের মরশুমে দুর্গাপুজোর আগেই খুলে দেওয়া হল কামাখ্যা মায়ের মন্দির। দেশজুড়ে করোনা অতিমারির কারণে  দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল মন্দির। এবছর অম্বুবাচিতেও মন্দিরে মায়ের দর্শন পাননি ভক্তরা।সাত মাস পর মন্দির খুললেও গর্ভগৃহ আপাতত বন্ধই রাখা হবে।তবে ভক্তরা বাইরে থেকে মায়ের পুজো দিতে পারবেন। 


নিউ নর্মালে ধীরে ধীরে যখন সবকিছু স্বাভাবিক হচ্ছে সেই অবস্থায়  শক্তিপীঠ কামাক্ষ্যা মন্দির দুর্গাপুজোর আগেই খুলে দেওয়ায় খুশি দর্শনার্থীরা।মন্দির কর্তৃপক্ষ জেলা প্রশাসনের সঙ্গে দীর্ঘ আলোচনার পরই মন্দির খোলার সিদ্ধান্ত নিলেও একাধিক করোনা বিধি মানতে হবে বলে জানিয়েছে। পরিস্থিতি যদি আরও স্বাভাবিক হয় তাহলে খুব সম্ভব  দূর্গাপুজোর পরেই মন্দিরের গর্ভগৃহ খুলে দেওয়া হতে পারে। করোনা অতিমারির কারণে এবছর অসম সরকার দূর্গাপুজো বন্ধ রাখছে, তাই কামাক্ষ্যা মায়ের দর্শন করতে পারবে বলে শান্তি ভক্তদের।  


 করোনার কারণে যখন দেশজুড়ে মানুষ আতঙ্কিত সেই সময় মার্চ মাসে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল অসমের কামাখ্যা মন্দির।দীর্ঘ সাত মাস পর ১১ অক্টোবর থেকে খুলে দেওয়া হয়েছে মন্দির। 
গর্ভগৃহ বন্ধ থাকবে আরও কিছুদিন। ভিতরে মায়ের পুজো হলেও সেখানে ভক্তদের প্রবেশ নিষেধ। দর্শনার্থীরা শুধু পরিক্রমার অনুমতি পেয়েছে।মন্দির কর্তৃপক্ষের তরফে জানানো হয়েছে , মন্দিরের দরজা খুলবে প্রতিদিন সকাল ৮টায়, এবং সূর্যাস্তের আগেই বন্ধ হবে মন্দির।যদিও  নবরাত্রি, দুর্গাপুজোয় সময়ে এই সময়সূচির পরিবর্তন হতে পারে বলে জানানো হয়েছে। 


তবে মন্দিরে আসলে মানতে হবে করোনা বিধি। যারা মন্দিরে  আসবে তাদের প্রথমেই নীলাচল পাহাড়ের নীচে স্বাস্থ্য শিবিরে রেপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষা করাতে হবে।তিন দিন আগে যাদের পরীক্ষা হয়েছে তারা সেই সার্টিফিকেট দেখাতে পারবে।এরপর করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট দেখিয়ে  প্রবেশ কার্ড সংগ্রহ করতে হবে।এসবের পর থার্মাল স্ক্রিনিং ও স্যানিটাইজেশন এর পর ১৫ মিনিটের জন্য মন্দিরে ঢোকার অনুমতি দেওয়া হবে।  মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক, এছাড়াও মেনে চলতে হবে সামাজিক দূরত্ববিধি।

Recent Content