এল এল বি( LLB) সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য, Detailed information about LLB in Bengali


আইনবিদ্যায় স্নাতক অথবা  ব্যাচেলর অফ লজ ( Bachelor of Laws) বোঝাতে ব্রিটিশ কমন ল’ বাCommon law নির্ধারিত আইনব্যবস্থা যা সব দেশে প্রচলন আছে, সেই সব দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে থেকে প্রাপ্ত আইন বিষয়ে প্রাথমিক উচ্চশিক্ষায়তনিক উপাধির সাধারণ নাম হল এলএল.বি. বা এলএলবি। এলএল.বি. পরিভাষাটি মূলত লাতিন ‘লিগাম ব্যাকালাউরেস’ থেকে এসেছে।লেগাম বাক্যালুরিয়াস বা এলএলবি হল তিন বছরের ব্যাচেলর অব আইন ডিগ্রি যা ভারতের অনেক নামী কলেজের মাধ্যমে প্রার্থীদের দেওয়া হয়।

এল এল বি ( LLB) সম্পর্কে   বিস্তারিত তথ্য

এলএলবি পাঠক্রমের সংক্ষিপ্ত গাইডলাইন, Brief Guidelines for LLB Courses

ভারতে ৩ বছরের ও ৫ বছরে এই দু’ধরনের এলএলবি কোর্স আছে। উচ্চ মাধ্যমিকের উত্তীর্ণ হওয়ার পর ৫ বছরের (বিএ এলএলবি/বি এসসি এলএলবি/বি কম এলএলবি) এলএলবি এবং গ্র্যাজুয়েশনের পর ৩ বছরের এলএলবি কোর্স করতে পারা যায়।

এলএলবি পাঠক্রমের সংক্ষিপ্ত গাইডলাইন

১০০+ পোষা কুকুরের নাম ~ Bengali Pet Dog Name Ideas

এলএলবি পাঠক্রম কারা পড়তে পারবেন, Who can study LLB course

ইচ্ছুক প্রার্থীরা উক্ত আইন কোর্সটি কেবল তখনই করতে পারে যদি তাদের স্নাতক ডিগ্রি থাকে। ভারতের সমস্ত আইন কলেজে দেওয়া তিন বছরের এলএলবি কোর্সটি বার কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়া (বিসিআই) দ্বারা নিয়ন্ত্রিত এবং নিবিড়ভাবে তত্ত্বাবধান করা হয়।
তিন বছরের আইন কোর্সটি এমনভাবে গঠন করা হয়েছে যেখানে পাঠ্যক্রমটি ছয়টি সেমিস্টারে বিভক্ত। প্রার্থীদের তখনই ডিগ্রী প্রদান করা হয় যখন তারা এই তিন বছরের এলএলবি কোর্সের সকল সেমিস্টার সম্পন্ন করে। ভারতের বেশিরভাগ জনপ্রিয় আইন কলেজে দেওয়া এলএলবি ডিগ্রির অংশ হিসাবে, প্রার্থীদের নিয়মিত তত্ত্ব ক্লাস, মুট কোর্ট, ইন্টার্নশিপের পাশাপাশি টিউটোরিয়াল কাজে অংশ নিতে হয়।

এলএলবি পাঠক্রম কারা পড়তে পারবেন

কম্পিউটারের ইতিহাস ~ History of Computer in Bengali

তিন বছরের এলএলবি যোগ্যতার মানদণ্ড, Eligibility criteria for three years LLB

প্রার্থীরা যারা এলএলবি কোর্স করতে চান তাদের যোগ্য হওয়ার জন্য কিছু শর্ত পূরণ করতে হবে। বিসিআই দ্বারা উল্লিখিত তিন বছরের এলএলবি কোর্সের যোগ্যতার মানদণ্ড নিচে দেওয়া হল:

**প্রার্থীদের গ্র্যাজুয়েট হতে হবে অর্থাৎ তাদের এলএলবি কোর্স করার জন্য যেকোনো বিষয়ে/ শাখায় তিন বছর বা চার বছরের মেয়াদে স্নাতক ডিগ্রি পাস হতে হবে।

**অনেক সময় এর বাইরেও কিছু কলেজ প্রার্থীদের এর ক্ষেত্রে তিন বছরের এলএলবি কোর্সে ভর্তির জন্য ন্যূনতম শতাংশ নম্বরের প্রয়োজনীয়তাও পূরণ করতে হয়। সাধারণ শ্রেণীর প্রার্থীদের জন্য যে (ন্যূনতম) শতাংশের নম্বর প্রয়োজন তা হল 45% থেকে 55% এবং SC/ST শ্রেণীর প্রার্থীদের জন্য এটি 35% থেকে 45% এর মধ্যে।

তিন বছরের এলএলবি যোগ্যতার মানদণ্ড

রিফারবিশড মানে কি, Refurbished meaning in Bengali, what are refurbished phones? pros & cons and all details

এলএলবি র জন্য প্রয়োজনীয় দক্ষতা, Skills required for LLB

এলএলবি একটি জনপ্রিয় কোর্স যা আইন প্রবাহের অংশ হিসাবে ছাত্রছাত্রীকে প্রদান করা হয়। ক্যারিয়ার হিসেবে আইন হল অত্যন্ত চাহিদাপূর্ণ একটি বিষয় এবং ইচ্ছুক প্রার্থীদের সেই বিষয়ের সাথে পুঙ্খানুপুঙ্খ ভাবে সংযুক্ত থাকতে হবে এবং এই শাখায় তাদের দীর্ঘ সময় আবধি কাজ করতে ইচ্ছুক হতে হবে। সুতরাং, এই ক্ষেত্রে যোগ দিতে ইচ্ছুক প্রার্থীদের নীচে নিম্নলিখিত দক্ষতা সমূহ থাকা প্রয়োজন।
*কথার সাবলীলতা এবং স্বচ্ছতা
*আত্মবিশ্বাস
*বস্তুনিষ্ঠতা
*গবেষণায় আগ্রহ
*বুদ্ধি
*অখণ্ডতা
*বিশ্বাসযোগ্য শক্তি
*সত্যকে বিশ্লেষণ করার পাশাপাশি আত্মীকরণের ক্ষমতা
*একটি বিষয়ে তর্ক করার ক্ষমতা
*বিস্তারিত আগ্রহ
প্ররোচিত করা
*পরিস্থিতি অনুসারে /মানুষের সঠিক বিচার
*মানসিক এবং শারীরিক শক্তি
*ভাল উপস্থাপনার দক্ষতা

এছাড়াও সার্বিকভাবে আইন পড়তে হলে কিছু বিষয় একজনকে অবশ্যই ভাবে জানতেই হবে যার মধ্যে অন্যতম হল ‘জুরিসপ্রুডেনস’, যা একাধারে আইনের বিজ্ঞান, দর্শন ও ব্যাকরণ। এখানে আইনের প্রাথমিক ধারণাগুলো আলোচনা করা হয়ে থাকে।

এলএলবি র জন্য প্রয়োজনীয় দক্ষতা

বাংলাদেশে ড্রাইভিং লাইসেন্স কী ভাবে পাওয়া যায়, How to get a driving license in Bangladesh explained in Bengali

তিন বছরের এলএলবি’র বিষয় এবং সিলেবাস, Subjects and Syllabus of Three Year LLB

এলএলবি কোর্সের পাঠ্যক্রম কলেজ থেকে কলেজে পরিবর্তিত হয়। এলএলবি কোর্সে শেখানোর কিছু সাধারণ বিষয় নিচে দেওয়া হল:
#শ্রমিক আইন,পারিবারিক আইন,ফৌজদারি আইন,পেশাগত নৈতিকতা, আইন অফ টর্টস অ্যান্ড কনজিউমার প্রোটেকশন অ্যাক্ট,সাংবিধানিক আইন,প্রমাণের আইন,সালিশি, সমঝোতা এবং বিকল্প
মানবাধিকার ও আন্তর্জাতিক আইন,
পরিবেশ আইন,সম্পত্তি আইন,আইনশাস্ত্র,আইনি সহায়তা,চুক্তির আইন,দেওয়ানি কার্যবিধি,সংবিধানের ব্যাখ্যা,আইনি লেখা,প্রশাসনিক আইন, ফৌজদারী কার্যবিধি,কোম্পানি আইন,ভূমি আইন (সিলিং এবং অন্যান্য স্থানীয় আইন সহ)
বিনিয়োগ ও সিকিউরিটিজ আইন/ ট্যাক্সেশন আইন/ সমবায় আইন/ ব্যাংকিং আইন সহ আলোচনা সাপেক্ষ যন্ত্র আইন, ঐচ্ছিক কাগজপত্র- চুক্তি/ বিশ্বাস/ নারী ও আইন/ অপরাধবিজ্ঞান/ আন্তর্জাতিক অর্থনীতি আইন,তুলনামূলক আইন/ বীমার আইন/ আইনের দ্বন্দ্ব/ বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পত্তি আইন।

তিন বছরের এলএলবি'র বিষয় এবং সিলেবাস

তিন বছরের এলএলবি ; চাকরি এবং ক্যারিয়ারের সুযোগ, Three year LLB; Job and career opportunities

এলএলবি ডিগ্রি শেষ করার পরে প্রার্থীদের জন্য প্রচুর চাকরির সুযোগ রয়েছে। প্রার্থীদের জানানো হয় যে তারা যদি ভারতে আইন চর্চা করতে চান তাহলে তাদের বিসিআই দ্বারা পরিচালিত অল ইন্ডিয়া বার পরীক্ষায় (এআইবিই) উত্তীর্ণ হতে হবে । উত্তীর্ণ হবার পরবর্তীকালে AIBE পরীক্ষার আইনজীবীদের একটি ‘সার্টিফিকেট অফ প্র্যাকটিস’ প্রদান করা হয় যা ভারতে আইনজীবী হিসেবে পেশা অনুশীলনের জন্য বাধ্যতামূলক।
এলএলবি ডিগ্রি অর্জনের পর প্রার্থীরা যে কয়েকটি জনপ্রিয় চাকরির প্রোফাইল অনুসরণ করতে পারেন তা নিচে উল্লেখ করা হল:

*আইনজীবী: এই কাজের প্রোফাইলে, প্রার্থী কে দেওয়ানি এবং ফৌজদারি ক্ষেত্রে ক্লায়েন্টদের পরামর্শ এবং প্রতিনিধিত্ব করতে হবে। আইনজীবীরা আদালতে মামলা উপস্থাপন করেন এবং সমস্ত কার্যক্রম এবং শুনানিতে অংশ নেন।

*আইনি উপদেষ্টা: এই ধরনের চাকরির প্রোফাইলে কাজ করা প্রার্থীরাও আইনজীবী যারা আইনের একটি নির্দিষ্ট ক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞ। আইনি উপদেষ্টা সাধারণত সরকার এবং বড় সংস্থা বা কোম্পানির দ্বারা নিয়োগ করা হয়ে থাকে। একজন আইনি উপদেষ্টার প্রধান কাজ হল তাদের ক্লায়েন্টদের কোন আইনি প্রভাব বা পরিণতি থেকে রক্ষা করা।

*অ্যাডভোকেট: এই ধরনের চাকরির প্রোফাইলে প্রার্থীদের দাবি সমর্থন করার জন্য বাস্তব তথ্য এবং শারীরিক প্রমাণ সংগ্রহের জন্য প্রচুর গবেষণার কাজ করতে হবে। এর বাইরে, অ্যাডভোকেটদের জন্য বরাদ্দ অন্যান্য দায়িত্বগুলির মধ্যে রয়েছে চুক্তিগুলি খতিয়ে দেখা এবং খসড়া তৈরি করা।

তিন বছরের এলএলবি ; চাকরি এবং ক্যারিয়ারের সুযোগ

*সলিসিটর: এই ধরনের কাজের প্রোফাইলে একজন ব্যক্তি সাধারণত আইনের একটি নির্দিষ্ট ক্ষেত্রে যেমন কর, মামলা, পরিবার বা সম্পত্তিতে বিশেষজ্ঞ হিসেবে চিহ্নিত হয়ে থাকে । সলিসিটরেরা ব্যক্তিগত এবং বাণিজ্যিক ক্লায়েন্টদের আইনি পরামর্শ প্রদান করে।

*শিক্ষক অথবা লেকচারার : এলএলবি ডিগ্রি শেষ করার পর প্রার্থীরা কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে আইন সম্পর্কিত শিক্ষা প্রদান করতে পারেন ।

*আইনের ডিগ্রিধারীদের জন্য রয়েছে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থা—যেমন ইউএনএইচসিআর, ইউএনডিপি, ডব্লিউএইচও, ইউনিসেফ, আইওএম, আইএলও ইত্যাদি প্রতিষ্ঠানে কাজ করার সুযোগ। তা ছাড়া মানবাধিকার কিংবা নারী ও শিশু অধিকার নিয়ে যদি কেউ কাজ করতে ইচ্ছুক থাকেন তবে তাঁর জন্য সেরা প্ল্যাটফর্ম হল আইনপাঠ।

অ, আ দিয়ে বাঙালি শিশুর নামের তালিকা, Bengali Baby Names Starting with A with meanings in Bengali

অন্যান্য সুযোগ সুবিধা, Other facilities

এত কিছু সুযোগের বাইরে আরও অনেক অনেক সম্ভাবনার দ্বার উন্মুক্ত থাকে এই বিষয়টি অধ্যয়ন করলে ; যেমন আইন পড়ে গবেষকও হওয়া যায়। গবেষণা যে কেবলমাত্র আইনের ভেতরেই সীমাবদ্ধ থাকবে তা নয়। এটি সমাজবিজ্ঞান, ধর্মতত্ত্ব, অর্থনীতি, মেডিকেল সায়েন্স সবকিছুর সম্পর্কে ও আইন নিয়ে গবেষণা করা সম্ভব। আর এই কারণেই আইনকে আন্তগবেষণা ক্ষেত্রও বলা যেতে পারে। পৃথিবী যতই এগিয়ে যাক না কেন, আইন পেশার গুরুত্ব সব সময় আছে এবং আগামী দিনেও থাকবে।

এলএলবি শীর্ষ নিয়োগকারী, Top law firms known to hire law graduates are listed below

শীর্ষ আইনী সংস্থাগুলি যারা আইন স্নাতক নিয়োগের জন্য পরিচিত তাদের নীচে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে :

#অমরচাঁদ ও মঙ্গলদাস এবং সুরেশ এ শ্রফ এন্ড কোং।
#এজেডবি অ্যান্ড পার্টনার্স
#খাইতান এন্ড সিও
#জে সাগর অ্যাসোসিয়েটস
*লুথরা ও লুথরা ল অফিসেস
#ট্রাইলেগাল
#এস অ্যান্ড আর অ্যাসোসিয়েটস
#ইকোনমিক ল’স প্র্যাক্টিস
#দেশাই অ্যান্ড দিওয়ানজি
#তালওয়ার ঠাকুর অ্যান্ড অ্যাসোসিয়েটস

এলএলবি শীর্ষ নিয়োগকারী

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে এলএলবি পড়ার খুঁটিনাটি, Details of studying LLB in Calcutta University

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের যে নিজস্ব আইন বিভাগটি রয়েছে তা বালিগঞ্জ ফাঁড়ির কাছে অবস্থিত যেটি হাজরা ল’ কলেজ নামে খ্যাত। এখানে ৫ বছরের বিএ এলএলবি কোর্স পড়ানো হয়ে থাকে; যোগ্যতা হিসেবে প্রয়োজন হয় উচ্চ মাধ্যমিক বা সমতুল পরীক্ষায় অন্তত ৪৫ শতাংশ নম্বর। এখানে ভর্তি হতে প্রবেশিকা পরীক্ষা দেওয়া বাঞ্ছনীয় ।ইংরেজি, জেনারেল অ্যাপটিটিউড, রিজ়নিং, অঙ্কের মতো বিভিন্ন বিষয় থাকে উক্ত পরীক্ষায় এবং আলাদা করে আইনের কোনও বিষয় থাকে না। ইচ্ছুক প্রার্থীরা চাইলে অনলাইৈ ফর্ম সংগ্রহ করতে পারে । এই ফর্ম সাধারণত এপ্রিল মাসের শেষে অথবা মে মাসের প্রথমে প্রকাশিত হয়। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক স্তরে আইন নিয়ে অধ্যয়ন করার জন্য বরাদ্দ আসন সংখ্যা হল মোট ১২০টি ।

হাজরা ল কলেজ ছাড়াও তিনটি সরকারি কলেজ এবং সেল্ফ-ফিনান্সড ন’টি কলেজে ও আইনের এই বিশেষ কোর্সটি পড়ানো হয়। এদের প্রত্যেকটিতেও আসন সংখ্যা ১২০টি করে বরাদ্দ থাকে এবং সব প্রতিষ্ঠান গুলিতেই কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশিকা পরীক্ষার মাধ্যমে ভর্তি হতে হয়। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ ৫ বছরের পড়াশোনার খরচ ১০,০০০ টাকা ধার্য করা হয় ।

তিনটি সরকারি কলেজে আনুমানিক ব্যয় প্রতি বছর ১০,০০০ টাকা। এছাড়া ন’টি সেল্ফ-ফিনান্সড কলেজে প্রতি বছর খরচ বাবদ ৫০,০০০ থেকে ৬০,০০০ টাকা লেগে থাকে। এলএলবি পাঠ্যক্রমটি বার কাউন্সিল অব ইন্ডিয়া-র নির্দেশিকা অনুযায়ী তৈরি করা হয়েছে আর সেই অনুযায়ী পাঠক্রমে আইনের বিষয় ছাড়াও ইংরেজি, ইকনমিক্স, সোশিয়োলজি, পলিটিক্যাল সায়েন্স ইত্যাদির মতো বিষয়ও পড়ানো হয়ে থাকে। অনার্স যারা পেয়ে থাকে, তাদের প্রতি সিমেস্টারে অতিরিক্ত দুটি করে আইনের অনার্স পেপার পড়তে হয়। সহজ কথায় বলা যেতে পারে চারটি সেমিস্টারে তাদের মোট আটটি অতিরিক্ত অনার্স পেপার পড়তে হয়।

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে এলএলবি পড়ার খুঁটিনাটি

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় অনুমোদিত এলএলবি পাঠ্যক্রমভুক্ত একাধিক সরকারি ল’ কলেজ, Several Government Law Colleges offering LLB courses are affiliated to Calcutta University

এদের মধ্যে অন্যতম হল:
• সুরেন্দ্রনাথ ল’ কলেজ
• যোগেশচন্দ্র চৌধুরী ল’ কলেজ
• সাউথ ক্যালকাটা ল’ কলেজ

**সরকারি কলেজগুলি ছাড়া সেলফ-ফিনান্সিং কোর্সের কলেজগুলির নাম নিচে উল্লেখ করা হলো —

• শ্যামবাজার ল’ কলেজ (শ্যামবাজার)
• জ্যোতির্ময় স্কুল অব ল’ (সোনারপুর)
• হেরিটেজ ল’ কলেজ
• বিকাশভারতী ল’ কলেজ (আমতলা)
• জর্জ ল’ কলেজ
• রবীন্দ্র শিক্ষা সম্মিলনী ল’ কলেজ (বারুইপুর)
ইত্যাদি।

বাংলাদেশ সম্পর্কে ৩০ টি অজানা তথ্য ~ Bangladesh Facts and History in Bengali

পশ্চিমবঙ্গে অন্যান্য কলেজ যেখানে আইন পড়ানো হয়, Other Colleges in West Bengal where Law is taught

• স্নেহাংশুকান্ত আচার্য ইনস্টিটিউট অব ল’
• বিমলচন্দ্র কলেজ অব ল’
• মোহাম্মদ আবদুল বারি ইনস্টিটিউট অব জুরিডিকাল সায়েন্সেস
• জে আর এস ই টি কলেজ অব ল’, চাকদহ
• গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন বালুরঘাট ল’ কলেজ
• জলপাইগুড়ি ল’ কলেজ
• উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় আইন বিভাগ
• শিলিগুড়ির ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব লিগাল স্টাডিজ
• দুর্গাপুর ইনস্টিটিউট অব লিগাল স্টাডিজ
• বেঙ্গল ল’ কলেজ শান্তিনিকেতন
* কলকাতার ইস্টার্ন মেট্রোপলিটান বাইপাসের ধারে দ্য ওয়েস্ট বেঙ্গল ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব জুরিডিকাল সায়েন্সেস

***** পশ্চিমবঙ্গে গ্র্যাজুয়েশনের পর ৩ বছরের এলএলবি পড়ানো হয়ে থাকে অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ে বা কলেজে। যেমন; কলকাতার সরশুনা ল’ কলেজে আছে ৩ বছরের এলএলবি কোর্স। এ ছাড়াও হলদিয়া ল’ কলেজ,মেদিনীপুর ল’ কলেজ , হুগলি মহসীন কলেজ, বেঙ্গল ল’ কলেজ শান্তিনিকেতন, দুর্গাপুর ইনস্টিটিউট অব লিগাল স্টাডিজ় ,ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব লিগাল স্টাডিজ় ইত্যাদিতে ৩ বছরের এলএলবি কোর্স পড়ানো হয়ে থাকে।

সর্বভারতীয় স্তরে LLB, LLB at All India level

সর্বভারতীয় স্তরে ন্যাশনাল ল’ ইউনিভার্সিটি দিল্লিতে ভর্তি হতে প্রবেশিকা পরীক্ষা দিতে হয়। তা ছাড়া, সিমবায়োসিস ল’ স্কুল পুণে , অ্যামিটি ল’ স্কুল , ইউনিভার্সিটি অব পেট্রোলিয়াম অ্যান্ড এনার্জি স্টাডিজ় দেহরাদূন, জিন্দাল গ্লোবাল ল’ স্কুল ইত্যাদি বেসরকারি ল’ কলেজেও এলএলবি পড়ানো হয়ে থাকে। তবে সরকারি প্রতিষ্ঠান থেকে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের খরচ অনেক বেশি হয়ে থাকে।

পরিশিষ্ট , Conclusion

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের ডিন অধ্যাপক জে কে দাস মনে করেন, বিশ্বায়ন ও প্রযুক্তি-বিপ্লবের সমগ্র বিশ্বব্যাপী প্রভাবের ফলে ‘আইন’ পেশা এবং আইন নিয়ে পড়াশোনার গুরুত্ব উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পেয়ে চলেছে । পর্যায়ক্রমে সৃষ্টি হয়েছে আইনের বিভিন্ন নতুন শাখা— ইনটেলেকচুয়াল প্রপার্টি ল’, সাইবার ল’, এনভায়রনমেন্টাল ল’, স্পোর্টস ল’, ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড ল’, মিডিয়া ল’, বায়োটেকনোলজি ল’ ইত্যাদি। আইনের এ হেন বিকাশ মানুষকে আগামী দিনে আরও আত্মসচেতন, আত্মনির্ভর এবং চিন্তামুক্ত করে তুলতে সাহায্য করবে ।

আইন নিয়ে পড়াশোনার গুরুত্ব উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পেয়ে চলেছে

Frequently asked questions:

এলএলবি কী ?

লেগাম বাক্যালুরিয়াস বা এলএলবি হল তিন বছরের ব্যাচেলর অব আইন ডিগ্রি যা ভারতের অনেক নামী কলেজের মাধ্যমে প্রার্থীদের দেওয়া হয়।

ভারতে এল এল বি 'র জন্য কত ধরনের কোর্স আছে ?

ভারতে ৩ বছরের ও ৫ বছরে এই দু’ধরনের এলএলবি কোর্স আছে। উচ্চ মাধ্যমিকের উত্তীর্ণ হওয়ার পর ৫ বছরের (বিএ এলএলবি/বি এসসি এলএলবি/বি কম এলএলবি) এলএলবি এবং গ্র্যাজুয়েশনের পর ৩ বছরের এলএলবি কোর্স করতে পারা যায়।

এলএলবি কোর্সে ভর্তির জন্য কি কি প্রয়োজন?

এলএলবি ডিগ্রি প্রদানকারী প্রতিটি আইন স্কুল বা বিশ্ববিদ্যালয় বিসিআই দ্বারা নির্ধারিত যোগ্যতার মানদণ্ড অনুসরণ করে। এলএলবি কোর্সে ভর্তির জন্য প্রার্থীদের অবশ্যই একটি স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিন বছর বা চার বছরের ব্যাচেলর ডিগ্রি থাকতে হবে। এই পৃষ্ঠায় উল্লিখিত এলএলবি কোর্সের সম্পূর্ণ যোগ্যতার মানদণ্ড পরীক্ষা করুন।

এলএলবি কোর্সের জন্য কি গণিত বাধ্যতামূলক?

এলএলবি কোর্সের যোগ্যতার মানদণ্ড অনুযায়ী, যেকোনো বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রিধারী প্রার্থীরা কোর্সটি করতে পারেন। এলএলবি কোর্সে ভর্তির জন্য গণিতেকে বাধ্যতামূলক বিষয় হিসাবে ধরা হয় না।

এলএলবি ডিগ্রীতে ভর্তির জন্য কি আমাকে CLAT এ উপস্থিত হতে হবে?

না, CLAT পরীক্ষা শুধুমাত্র পাঁচ বছরের এলএলবি কোর্স এবং এলএলএম কোর্সে ভর্তির জন্য পরিচালিত হয়। এলএলবি ডিগ্রিতে ভর্তির জন্য, প্রার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়/ আইন কলেজ দ্বারা পরিচালিত প্রবেশিকা পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে।

Viral Telegram Channel 🔥

Recent Posts