যুবশ্রী প্রকল্প সমস্ত তথ্য | Yuvashree Prakalpa online application form, fees, eligibility – all details in Bengali



পশ্চিমবঙ্গে বেকারদের আরো স্বনির্ভর করার লক্ষ্য নিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মাননীয়া মমতা ব্যানার্জী সূচনা করেন যুবশ্রী প্রকল্প। নথিভুক্ত যুবক যুবতীরা যাতে সঠিক প্রশিক্ষণের মাধ্যমে নিজেদের কর্মদক্ষতা বৃদ্ধি করতে পারেন এবং নিজেদের শিক্ষা চালিয়ে নিয়ে যেতে পারেন সেই উদ্দেশ্যেই এই প্রকল্পের মাধ্যমে আর্থিক সহায়তা নির্ধারিত করা হয়েছে ।

যুবশ্রী প্রকল্প অনুযায়ী প্রতি বছর রাজ্যে ৫০০০০ হাজার যুবক যুবতী দের জন্য , মাথা পিছু ১ লক্ষ টাকা করে আর্থিক সহায়তা দান করা হবে যাতে তারা সেই অর্থ দিয়ে ব্যবস্যাবাণিজ্য বা শিল্প কে উদ্যোগ করে স্বনির্ভর হতে পারে।

Yuvashree Prakalpa

প্রকল্পটির শুভারম্ভ

তথ্য-প্রযুক্তিগত সাহায্যের মাধ্যমে রাজ্য এমপ্লয়মেন্ট এক্সচেঞ্জের থেকে তৈরি হয় এমপ্লয়মেন্ট ব্যাঙ্ক আর সেখান থেকেই কর্মসন্ধানীদের জন্য ২০১৩ সালের অক্টোবর মাস থেকে শুরু হয় “যুব-উৎসাহ প্রকল্প” বা “যুবশ্রী প্রকল্প”। এই প্রকল্পের মাধ্যমে কর্মসন্ধানীদের ভাতা প্রদান করা হয়, নিজেদের দক্ষতা প্রশিক্ষণ করার উদ্দেশ্য নিয়ে।

পশ্চিমবঙ্গের মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী বেকার যুবকদের জন্য নেতাজী ইন্ডোর স্টেডিয়ামে “যুবশ্রী প্রকল্পের” উদ্বোধন করেন এবং উক্ত দিনেই ভারতীয় যুবকদের হাতে ১৫০০ টাকার অর্থসাহায্য প্রদান করা হয় ; বেকারদের হাতে চেক তুলে দেন তিনি। এই প্রকল্পটি যারা বেকার তাদের জন্য একটি অতি উত্তম মাধ্যম স্বনির্ভর হওয়ার ক্ষেত্রে । প্রত্যেক মাসে উপভোক্তাদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে এ জমা পড়বে যুবশ্রী প্রকল্পের ১৫০০ টাকা।

যুবশ্রী প্রকল্প এর উদ্দেশ্য

যুবশ্রী প্রকল্প হল পশ্চিমবঙ্গ সরকারের অধীনে এবং উদ্যোগে নির্মিত একটি প্রকল্প যা সমাজের কর্মহীন, কর্ম সন্ধানী এবং বেকার যুবকদের কথা মাথায় রেখে চালু করা হয়েছে। যুবশ্রী প্রকল্পের এক এবং অন্যতম প্রধান উদ্দেশ্যে হল বেকার যুবকদের কর্মসংস্থানের জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদান করা।

wb-yuvashree-arpan-yojana

যোগ্যতা | Yuvashree Prakalpa Eligibility

কোনো ব্যক্তি যদি এখনো চাকরি না পেয়ে থাকেন ব‍া যদি তিনি বেকার হন এবং যদি তিনি এই প্রকল্পের যোগ্য হন তাহলে অবশ্যই তাঁর এই প্রকল্প এর জন্য আবেদন করা উচিত। মোট কথা যে কোনো কর্মসন্ধানীরাই এই পদের জন্য আবদেন করতে পারেন। তবে তাঁকে তাঁর যোগ্যতা প্রমাণ করতে কিছু শর্ত পূরণ করতে হবে, যেমন:

  • আবেদনকারীকে বেকার ও পশ্চিমবঙ্গের স্থায়ী বাসিন্দা হতে হবে।
  • এমপ্লয়মেন্ট ব্যাঙ্ক (www.employmentbankwb.gov.in)-এ “জব সিকার ” (Job Seeker) হিসাবে আবেদনকারীর নাম নথিভুক্ত থাকতে হবে ;অর্থাৎ যুবশ্রী প্রকল্পের মাধ্যমে ভাতা প্রাপ্ত করার জন্য তাঁকে প্রথমে “এমপ্লয়মেন্ট ব্যাঙ্ক ” ওয়েবসাইটে গিয়ে নিজের একটি প্রোফাইল বানাতে হবে।
  • আবেদনকারীকে অন্তত অষ্টম শ্রেণী উত্তীর্ণ হতে হবে।
  • আবেদনকারী যে বছরে আবেদন করবেন, সেই বছরের ১ এপ্রিল তারিখ অনুযায়ী তাঁর বয়স হতে হবে ১৮ থেকে ৪৫ বছর।
  • আবেদনকারী প্রার্থীর নামে রাজ্য বা কেন্দ্রীয় সরকারি স্পন্সর্ড কোনো আর্থিক সহায়তা বা ঋণ থাকলে তাঁকে এই প্রকল্পের সুবিধা পাওয়ার যোগ্য হিসেবে মনে করা হবে না ।
  • আবেদনকারীর যদি এমপ্লয়মেন্ট ব্যাঙ্ক এ নাম নথিভুক্ত থাকে এবং আই. টি.আই বা এই ধরনের কারিগরি শিক্ষা থাকলে এই প্রকল্পে তিনি অগ্রাধিকার পাবেন।

যুবশ্রী প্রকল্পের জন্য প্রয়োজনীয় নথিপত্র | Necessary Documents for Yuvashree Prakalpa

যুবশ্রী প্রকল্পের জন্য আবেদন করার সময় নিম্নলিখিত নথিপত্র অবশ্যই প্রয়োজনীয়

  1. প্রার্থীর উচ্চ মাধ্যমিকের রেজাল্টের ফোটো কপি।
  2. অন্যান্য শিক্ষাগত সার্টিফিকেট থাকলে সেগুলোও জমা দেওয়া বাঞ্ছনীয়।
  3. প্রার্থীর ভোটার আই কার্ড
  4. প্রার্থীর প্যান কার্ড
  5. আবেদনকারীর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের ডিটেলস এবং পাস বুকের প্রথম পৃষ্ঠার কপি। ব্যাংক অ্যাকাউন্ট টি কোনও রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের হওয়া আবশ্যক।

আবেদন পদ্ধতি | How to apply for Yuvashree Prakalpa

প্রথমে প্রার্থীকে এমপ্লয়মেন্ট ব্যাঙ্ক-এর www.employmentbankwb.gov.in ওয়েবসাইট থেকে আবেদন পত্র (Annexure I) ও Unemployed Certificate (Annexure II) ডাউনলোড করতে হবে। তারপর সেটিকে পূরণ করে তাঁর শিক্ষাগত যোগ্যতা, বয়সের প্রমাণপত্র, জাতিগত শংসাপত্র (প্রয়োজন হলে), রেসিডেন্সিয়াল প্রুফ সহ পূরণ করা আবেদন নিজেদের এসডিও অফিসে জমা করতে হবে।

প্রকল্প আবেদন করার পদ্ধতি কি ?

এই প্রকল্পে আবেদন করার জন্য আবেদনকারী ক্ষুদ্র ছোট মাঝারি শিল্প দপ্তরে যোগাযোগ করতে পারেন। ক্ষুদ্র ছোট মাঝারি শিল্প দপ্তরে গিয়ে আগ্রহী প্রার্থীরা বিস্তারিত তথ্য জানতে পারবেন। এছাড়া [email protected] এই আই ডি তে মেইল করে প্রকল্প সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন বা কিছু প্রশ্ন থাকলে সেখানে করতে পারবেন।

যুবশ্রী প্রকল্পে অনলাইনে আবেদন করার পদ্ধতি | Yuvashree Prakalpa Online application process

এই প্রকল্প এর জন্য আবেদন করতে হলে কি কি করণীয় তা নীচে দেওয়া হল-

  • প্রথমে এমপ্লয়মেন্ট ব্যাঙ্কের ওয়েবসাইটে যেতে হবে। Website – www.employmentbankwb.gov.in
  • ওয়েবসাইট থেকে আবেদনপত্র (ANNEXURE-১) এবং বেকারত্বের জন্য (Annexure-2) Form ডাউনলোড করতে হয় আবেদনকারীকে ।
  • তারপর ফর্ম টি পূরণ করি যে সব তথ্য চাওয়া হয়েছে তা ফর্মের সাথে দিয়ে বিডিও অফিসে জমা করতে হবে

অভিযোগ দায়ের করতে

প্রশাসনের ভিতরেই এক শ্রেণির অফিসার উপস্থিত থাকেন যারা কিনা সরকারি প্রকল্পগুলির নিবিড় বাস্তবায়নে বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছেন বলে অভিযোগ তুলেছেন মুখ্যমন্ত্রী। এই সমস্যার সমাধান করতে তিনি একটি নতুন কমিটি গড়ে দিয়েছেন যেখানে প্রকল্প নজরদারির পাশাপাশি মানুষের অভিযোগও শোনা হবে। । তার জন্য টোল-ফ্রি নম্বর ১৮০০-৩৪৫-৮২৪৪। এসএমএসে অভিযোগ জানাতে হবে এই নম্বরে: ৯০৭৩৩০০৫২৪। ই-মেল^ আইডি ([email protected])। ডিএম, এসপি-রা এই কাজে নোডাল অফিসার ও নিযুক্ত করবেন এখানে।

যুবশ্রী প্রকল্পের সুবিধা গুলি কি কি | Yuvashree Prakalpa Benefits

যুবশ্রী প্রকল্পের এর মাধ্যমে সরকারের তরফ থেকে যুব সামাজের মধ্যে কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা ও তাদের অর্থনৈতিক শ্রীবৃদ্ধির ঘটানো।

  • কর্মহীন বা বেকার যুবকেরা মাসিক ১৫০০ টাকা করে ভাতা আর্থিক সাহায্য পাবে।
  • কর্মসংস্থান বা বেকার যুবকেরা আর্থিক সহায়তায় নিজস্ব ব্যবসায় শুরু করে আর্থিক ভাবে সাবলম্বী হতে পারবে এই প্রকল্পের মাধ্যমে ।
  • যুবশ্রীর প্রকল্প বেকার যুবকদের জন্য এমন কর্মসংস্থান সৃষ্টি করবে যা তাদের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির দিকে পরিচালিত করবে।তাদের নিজস্ব ব্যবসায় শুরু করার জন্য আর্থিক সহায়তা প্রদান করবে।

এমপ্লয়মেন্ট ব্যাংকে রেজিস্ট্রেশনের করার পদ্ধতি | How to register for Employment Bank, West Bengal

আগেই বলা হয়েছে যুবশ্রী প্রকল্পের আবেদন করার আগে উৎসুক প্রার্থীকে এমপ্লয়মেন্ট ব্যাঙ্কে নিজের নাম রেজিস্ট্রার করতে হবে। নীচের পদ্ধতি অনুসরণ করে আপনি অনলাইন রেজিস্ট্রেশন করতে পারেন।

  1. আবেদনকারীকে প্রথমে এমপ্লয়মেন্ট অফিসের ওয়েবসাইটে যেতে হবে।
  2. Website খুললে “New Enrollment Job Seeker” একটি অপশন দেখতে পাওয়া যাবে। ওই বোতামে এ ক্লিক করে কি কি শর্তাবলী গুলি মানতে হবে সেগুলি কম্পিউটার স্ক্রিনে দেখতে পাওয়া যাবে।
  3. পরবর্তী পর্যায়ে প্রার্থীকে “Accept and Continue” অপশনে ক্লিক করতে হবে রেজিস্টার ফর্ম দেখতে হলে।
  4. আবেদনপত্রে যে তথ্যগুলি চাওয়া হয়ে থাকে সেগুলি সঠিকভাবে সঠিক জায়গায় বসিয়ে ফর্মটি পূরণ করতে হবে এবং পরিশেষে সেভ অপশনে ক্লিক করতে হবে।
  5. এভাবেই আবেদনকারী অবশেষে নিজের স্বীকৃতি হিসেবে একটি Registration Number পাবেন।

যুবশ্রী প্রকল্পের ভাতা যে ভাবে পাবেন | Who will get money from Yuvashree Prakalpa

যে সকল আবেদনকারীর যুবশ্রী প্রকল্প তালিকায় নাম উঠবে, তাদের ফোন নম্বর অথবা তাদের দেওয়া ই মেইল আইডির মাধ্যমে সূচিত করা হবে । প্রথমে এক লক্ষ প্রার্থীকে জানানো হবে কিন্তু মনে রাখতে হবে যে তাদের এই বেকার ভাতা পাওয়ার জন্য তাদের একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক একাউন্ট থাকতে হবে কারণ এই অ্যাকাউন্টেই যুবশ্রী প্রকল্পের বেকার ভাতার প্রদেয় অর্থ পাঠানো হবে সরাসরি।“ফার্স্ট কম, ফার্স্ট সার্ভ” ভিত্তিতে এই ভাতা প্রদান করা হয়ে থাকে।

এই ক্ষেত্রে আরও একটি বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল এই যে ভাতাপ্রাপ্ত প্রার্থী পরবর্তী ছয় মাস পর যে বেকার অবস্থায় রয়েছেন তার প্রমাণ হিসেবে একটি “Declaration Form” (Annexure III) জমা করতে হবে আর সেটি প্রতি ছয় মাস অন্তর তাকর এসডিও অফিসে জমা করতে হবে নচেৎ ভাতাপ্রাপ্তি বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে।

wb-yuvashree-arpan-yojana

যুবশ্রী প্রকল্প সম্পর্কিত প্রয়োজনীয় লিঙ্ক | Yuvashree Prakalpa Website

যারা যারা যুবশ্রী প্রকল্প সম্পর্কে আরও বিস্তারিত ভাবে জানতে চান তাঁরা এই লিংকটিতে ক্লিক করতে পারেন
https://employmentbankwb.gov.in/yuvasree.php

FAQ :

যুবশ্রী প্রকল্পে মাসিক কত টাকা দেয়া হয়ে থাকে ?

এই প্রকল্পে মাসিক ১৫০০ টাকা ভাতা পাওয়া যাবে।

বেকার ভাতার টাকা কীভাবে পাওয়া সম্ভব ?

আবেদনকারী যদি এই প্রকল্পের জন্য নির্বাচিত হন তা হলে তাঁর ব্যাংকে সরাসরি প্রতি মাসে টাকা ঢুকে যাবে ।

যারা চাকরি করে তারা কি যুবশ্রী প্রকল্পে আবেদনের যোগ্য?

না, শুধুমাত্র বেকারদের জন্যই এই প্রকল্প নিবেদিত।

এমপ্লয়মেন্ট এক্সচেঞ্জ অফিসে এ আবেদনকারীর নাম নথিভুক্ত না থাকলে এই প্রকল্পের জন্য আবেদন করা যাবে কি ?

এই প্রকল্পের জন্য এমপ্লয়মেন্ট এক্সচেঞ্জ অফিসে নাম নথিভুক্ত করাতেই হবে যদি আবেদনকারী এই প্রকল্পের সুবিধা পাওয়ার জন্য ইচ্ছুক থাকেন।

যুবশ্রী প্রকল্প এর জন্য apply কীভাবে করা হয়?

প্রথমে প্রার্থীকে এমপ্লয়মেন্ট ব্যাঙ্ক-এর www.employmentbankwb.gov.in ওয়েবসাইট থেকে আবেদন পত্র (Annexure I) ও Unemployed Certificate (Annexure II) ডাউনলোড করতে হবে। তারপর সেটিকে পূরণ করে তাঁর শিক্ষাগত যোগ্যতা, বয়সের প্রমাণপত্র, জাতিগত শংসাপত্র (প্রয়োজন হলে), রেসিডেন্সিয়াল প্রুফ সহ পূরণ করা আবেদন নিজেদের এসডিও অফিসে জমা করতে হবে।

যুবশ্রী প্রকল্পের জন্য কি কি ডকুমেন্টস লাগবে?

  • প্রার্থীর উচ্চ মাধ্যমিকের রেজাল্টের ফোটো কপি।
  • প্রার্থীর ভোটার আই কার্ড
  • প্রার্থীর প্যান কার্ড
  • আবেদনকারীর ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের ডিটেলস এবং পাস বুকের প্রথম পৃষ্ঠার কপি। ব্যাংক অ্যাকাউন্ট টি কোনও রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের হওয়া আবশ্যক।
Close

Recent Posts

link to প্রতিশ্রুতি ও প্রতিজ্ঞা নিয়েই দু চার কথা | Bengali Quotes & Lines On Promise | Pratigya nie Ukti

প্রতিশ্রুতি ও প্রতিজ্ঞা নিয়েই দু চার কথা | Bengali Quotes & Lines On Promise | Pratigya nie Ukti

প্রতিজ্ঞা বা প্রতিশ্রুতি হলো একটি অলিখিত অঙ্গীকার যা কোনো মানুষকে প্রদান...